Chorabali Logo
স্বাস্থ্য

একুশে ফেব্রুয়ারি ২০২৪| একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস ও এসএমএস

বাঙালির চেতনা একটি স্মৃতি বিজড়িত ও গৌরব উজ্জ্বল দিন হচ্ছে একুশে ফেব্রুয়ারি দিন অর্থাৎ ভাষা দিবসের দিন কিংবা শহীদ দিবসের দিন।। এই দিনটি ১৯৫২ সাল থেকে প্রতি বছর বাঙালি পালন করে থাকে। শুধুমাত্র এই দিনটি বাংলাদেশের মানুষ পালন করলেও বর্তমান সময়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে একুশে ফেব্রুয়ারি দিনটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রতি বছর পালিত হচ্ছে। একুশে ফেব্রুয়ারি দিনে দেশের প্রতিটি স্কুল কলেজে কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে থাকে সেই সাথে শহীদ মিনারে ফুল অর্পণ করে তাদেরকে গভীরভাবে শ্রদ্ধা জানাই। এই দিনটি উপলক্ষে প্রতিটি শিক্ষার্থীর মাঝে বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে তাদের অভিজ্ঞতা ও অনুভূতি শেয়ার করে থাকেন। তাই আজকের আলোচনায় একুশে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ এবং ২১ শে ফেব্রুয়ারি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস এসএমএস গুলো তুলে ধরা হয়েছে যেগুলো আপনারা সংগ্রহ করার মাধ্যমে ভাষা আন্দোলন এর স্মৃতি স্মরণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে পারবেন।

বাঙালি জাতির ইতিহাস মূলত স্মৃতি বিজড়িত একটি ইতিহাস কেননা এখানে বেশ কিছু স্মৃতি বিজড়িত দিনের কিংবা ঘটনার বর্ণনা পাওয়া যায় যেগুলোতে বাঙালি এত সংগ্রাম চালিয়ে ছিল এবং তাদের জীবন উৎসর্গ করেছিল। বাঙালির ইতিহাসে এরকম একটি গৌরবজ্জ্বল এবং স্মৃতি বিজড়িত দিন হচ্ছে একুশে ফেব্রুয়ারি দিন যা আমরা প্রতিবছর ভাষা দিবস হিসেবে পালন করে থাকি। এই দিনের কাহিনী কিংবা পটভূমি অনুসন্ধান করলে জানা যায় ১৯৫২ সালের পশ্চিম পাকিস্তানের সরকার যখন রাষ্ট্রভাষাকে উর্দু হিসেবে ঘোষণা করে থাকে তখন পূর্ব বাংলার ছাত্র সমাজ তাদের এ অন্যায় দাবি মেনে নেয়নি বরং তারা রাষ্ট্রভাষা বাংলাকে করার জন্য রাজপথে সংগ্রাম আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ে। বাঙালি ছাত্র সমাজের এই আন্দোলনে অনেকেই অকালে প্রাণ হারায় এবং অনেকেই তাদের বুকের তাজা রক্ত রাজপথে বিলিয়ে দেয়। অবশেষে ঐক্যবদ্ধ বাঙালি জাতির কাছে পাকিস্তান সরকার হার মেনে নেওয়া এবং রাষ্ট্রভাষা হিসেবে পূর্ব বাংলায় বাংলা ভাষাকে দিতে বাধ্য হয়। মূলত ১৯৫২ সালে এই দিনের চেতনা এবং স্মৃতি প্রতিবছর প্রতিটি বাঙালির মাঝে ধারণ করার জন্য একুশে ফেব্রুয়ারি দিনটি ভাষা দিবস কিংবা শহীদ দিবস হিসেবে পালন করা হয় এই দিনে ভাষার প্রতিটি শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় সেই সাথে তাদের শহীদে আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। দিনটি মূলত পৃথিবীতে যতদিন বাঙালির ইতিহাস থাকবে ততদিন এই দিনের স্মৃতি প্রতিটি বাঙালির অন্তরে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

একুশে ফেব্রুয়ারি ২০২৪

বাঙালি ইতিহাস একটি স্মৃতি বিজড়িত দিনের নাম হচ্ছে একুশে ফেব্রুয়ারি কেননা এই দিনে বাংলার ছাত্রসমাজ তাদের মুখের ভাষার জন্য আন্দোলনের সংগ্রাম করেছিল এবং তারা বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা মর্যাদায় আসীন করতে সক্ষম হয়েছিল। ১৯৫২ সালে তাদের এই অম্লান কৃতি প্রতিবছর প্রতিটি বাঙালির মাঝে ধারণ করার জন্যই মূলত একুশে ফেব্রুয়ারি পালন করা হয়। এই দিনে সারাদেশে শিক্ষার্থীরা ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে থাকে সেই সাথে শহীদ মিনারে ফুল অর্পণ করে থাকে। তাইতো অনেকেই ২০২৪ সালে একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে বিভিন্ন ধরনের তথ্য এ ইতিমধ্যে অনলাইনে জানার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তাদের জন্য আজকে একুশে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ সম্পর্কিত প্রতিবেদনটি তুলে ধরা হয়েছে। আপনারা আমাদের আজকের আলোচনার মাধ্যমে ২০২৪ ২১শে ফেব্রুয়ারি সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো জেনে নিতে পারবেন।

একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস

প্রতিটি বাঙালির কাছে যে চেতনাও স্মৃতি বিজড়িত দিনগুলোর স্মৃতি স্মরণীয় হয়ে রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে একুশে ফেব্রুয়ারি যদিও বর্তমান প্রজন্মের মানুষ একুশে ফেব্রুয়ারির আন্দোলন সংগ্রামের সাথে পরিচিত নয় তবুও তারা প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষা শহীদদের চেতনা নিজেদের মাঝে ধারণ করে থাকে। প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি দিন তাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে থাকে সেই সাথে তাদের শহীদে আত্মার মাগফেরাত কামনা করে থাকে। অনেকেই আবার একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনা নিজের মাঝে ধারণ করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের স্ট্যাটাস শেয়ার করেন। তাদের জন্য আজকে একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস গুলো তুলে ধরা হয়েছে। আপনারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস গুলো সংগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে পারবেন। নিচে একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস গুলো তুলে ধরা হলো:

ফাল্গুণ মানে বর্ণ মালার খেলা,
ফাল্গুণ মানে হাজার ফুলের মেলা,
ফাল্গুণ মানে ফুটন্ত লাল গোলাপ,
ফাল্গুণ মানে স্বাধীনতার আলাপ,
ফাল্গুণ মানে ভাষার মেলা
আমার তোমার সবার।
সবাইকে ২১শে ফেব্রুয়ারীর শুভেচ্ছা।

বাংলাদেশের সোনার ছেলে,
ভাষা শহিদ দের দল।
জীবন দিয়ে এনে দিল বাংলা ভাষার ফল…
তাদের দানে আজকে মোরা
স্বাধীন ভাবে বাংলা বলি।
সেই সোনাদের ত্যাগের কথা
কেমন করে ভুলি।

যদি এই ভাষাটা না থাকতো
তবে এত কাব্য এত কবিতা কে লেখত।
যদি এই ভাষাটা না থাকতো
তবে ভালোবাসি এই মিষ্টি কথাটা কে বলত।
যদি এই ভাষাটা না থাকতো
তবে মাকে এত মধুর সুরে কে ডাকত।
সব্বাইকে ২১শে ফেব্রুয়ারীর শুভেচ্ছা।

রক্তে লিখা একটি দিন,
নাম তার ২১শে ফেব্রুয়ারী।
শ্রদ্ধায় আজ সিক্ত জাতী,
জানাই মোরা ফুল দিয়ে প্রিতি।
বাকি ৩৬৪দিন শহীদ মিনার
কাটে যে অবহেলায়।
আজ তুই জবাব দে মা,
যাদের জন্য জবাফুল হল লাল।
রক্ত তে ভেসেগেল বাংলার মাটি,
১দিন স্মরণ করে কি শোধ হবে,
৩০ লক্ষ ভাষা শহীদদের ঋণ।

একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে এসএমএস

একুশে ফেব্রুয়ারি হচ্ছে বাঙালি জাতির কাছে ভাষা দিবস কিংবা শহীদ দিবসের একটি দিন। এই দিনের মূলত বাঙালি জাতি তাদের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলা পেয়েছিল তাইতো একুশে ফেব্রুয়ারি দিনটি তৎকালীন ১৯৫২ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত প্রতিটি বাঙালির কাছেই স্মরণীয়। এই দিনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের শুভেচ্ছা অনেকেই বন্ধু-বান্ধব কিংবা আপনজনদের জানিয়ে থাকেন। একুশে ফেব্রুয়ারি কিংবা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য অনেকেই ছোট ছোট এসএমএস কিংবা খুদেবার্তা ব্যবহার করেন তাদের উদ্দেশ্যে আজকে একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে এসএমএস গুলো তুলে ধরা হয়েছে যেগুলো আপনাদেরকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের শুভেচ্ছা জানাতে সহায়তা করবে। নিচে একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে এসএমএস গুলো তুলে ধরা হলো:

১। মনে পড়ে ৫২ এর কথা , মনে পড়ে একুশে ফেব্রুয়ারির কথা, যখন হারিয়েছি আমার ভাইদের, দিয়েছি রক্ত ভাষার জন্য।
……আসাদ চৌধুরী

২। ও মা কেমন করে ভুলি বল ২১শে ফেব্রুয়ারী?
আমার পরানে আজও তাদের সুর বাজে।
বুকের তাজা রক্তে যারা লিখে ছিল বাংলা ভাষা।
২১শে ফেব্রুয়ারী প্রভাতে ফুল দিয়ে ও মা পুরন হবে কি তাদের আশা।

৩। মায়ের ভাষার কথা বলা মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি। মাতৃভাষা মহান আল্লাহর অপার দান।

৪। কারো দানে পাওয়া নয়, রক্ত দিয়ে কেনা এই বাংলা ভাষা।

৫। প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের চেতনা সৃষ্টিতে মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষার আন্দোলনই প্রেরণার উৎস হিসেবে কাজ করে।

৬। গর্ভে বুকটা ভরে যায়, তাদের জন্য – যারা জীবন করেছে দান ভাষার জন্য।

Mahedi Roni

আমি মেহেদি হাসান। পেশায় একজন বেসরকারি চাকরিজীবী। ২০১৫ সাল থেকে লেখালিখি নিয়ে আছি। এখন লেখালিখি পেশা ও সখ ২ টাই হয়ে গেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also
Close