Chorabali Logo

স্বাদে ভরপুর গরুর কালা ভুনা: ঘরোয়া রেসিপি 2024

গরুর কালা ভুনা একটি জনপ্রিয় বাঙালি খাবার যা এর অতুলনীয় স্বাদ এবং মনোমুগ্ধকর মসলা মিশ্রণের জন্য পরিচিত। এই বিশেষ রেসিপিটি কিছুটা সময়সাপেক্ষ হলেও এর প্রতিটি বাইটে আপনি পাবেন ঘরোয়া স্বাদের আসল আনন্দ। যারা বাঙালি খাবার ভালোবাসেন, তাদের জন্য গরুর কালা ভুনা একটি অবশ্যই চেষ্টা করার মতো পদ। আজ আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি গরুর কালা ভুনার একটি সহজ এবং সুস্বাদু রেসিপি, যা আপনাদের রান্নাঘরে আনবে ভিন্নধর্মী স্বাদ এবং সুখের ছোঁয়া।

গরুর কালা ভুনা
গরুর কালা ভুনা

গরুর কালা ভুনা একটি জনপ্রিয় এবং সুস্বাদু বাঙালি খাবার। এই রেসিপিটি কিছুটা সময়সাপেক্ষ হলেও এর স্বাদ সত্যিই অতুলনীয়। নিচে গরুর কালা ভুনার একটি রেসিপি দেওয়া হলো:

গরুর কালা ভুনা রেসিপির উপকরণ

১। গরুর মাংস (বোনলেস) – ১ কেজি

২। পেঁয়াজ কুচি – ৪-৫ টি

৩। আদা বাটা – ২ টেবিল চামচ

৪। রসুন বাটা – ২ টেবিল চামচ

৫। টক দই – ১ কাপ

৬। কাঁচা মরিচ – ৬-৮ টি (পছন্দমতো কুচি করা)

৭। লবণ – স্বাদ অনুযায়ী

৮। হলুদ গুঁড়া – ১ চা চামচ

৯। মরিচ গুঁড়া – ২ চা চামচ

১০। ধনে গুঁড়া – ১ চা চামচ

১১। জিরা গুঁড়া – ১ চা চামচ

১২। গরম মসলা গুঁড়া – ১ চা চামচ

১৩। দারুচিনি – ২ টুকরো

১৪। এলাচ – ৪-৫ টি

১৫। তেজপাতা – ২ টি

১৬। লবঙ্গ – ৪-৫ টি

১৭। তেল – ১ কাপ

১৮। পানি – প্রয়োজনমতো

কালা ভুনা রান্নার প্রণালী

  1. মাংস ম্যারিনেট করা: প্রথমে গরুর মাংস ভালোভাবে ধুয়ে নিয়ে এতে আদা বাটা, রসুন বাটা, টক দই, লবণ, হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, ধনে গুঁড়া, জিরা গুঁড়া এবং অল্প তেল দিয়ে মেখে ১-২ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন।
  1. পেঁয়াজ ভাজা: একটি বড় হাঁড়িতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি বাদামী করে ভেজে নিন। পেঁয়াজ গুলো বের করে রাখুন।
  1. মাংস রান্না করা: পেঁয়াজ ভাজার পর যে তেল থাকবে তাতে দারুচিনি, এলাচ, তেজপাতা, লবঙ্গ দিয়ে ফোড়ন দিন। তারপর ম্যারিনেট করা মাংস দিয়ে ভালোভাবে কষিয়ে নিন।
  1. মাংস সেদ্ধ করা: মাংস থেকে তেল ছেড়ে আসলে কাঁচা মরিচ দিয়ে দিন এবং প্রয়োজনমতো পানি দিয়ে ঢেকে মাংস সেদ্ধ হতে দিন। মাঝে মাঝে নাড়ুন যাতে পুড়ে না যায়।
  1. পেঁয়াজ এবং গরম মসলা: মাংস ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে গেলে ভাজা পেঁয়াজ গুলো এবং গরম মসলা গুঁড়া দিয়ে দিন। এরপর আরেকবার কষিয়ে নিন।
  1. চুলা বন্ধ করা: মাংস থেকে তেল বেরিয়ে এলে এবং মাংস একদম মাখা মাখা হয়ে এলে চুলা বন্ধ করে দিন।

আরও>> 

পরিবেশন:

গরুর কালা ভুনা গরম গরম ভাত বা পোলাওয়ের সাথে পরিবেশন করুন। এটি আপনার খাবারের টেবিলকে করবে আরও মনোমুগ্ধকর। 

আশা করি এই রেসিপিটি আপনাদের ভালো লাগবে। বোনাস হিসেবে, বেশি সুস্বাদু করতে রান্নায় ভালো মানের মশলা এবং টক দই ব্যবহার করুন। 

গরুর কালা ভুনা শুধু একটি রেসিপি নয়, এটি বাঙালি সংস্কৃতির একটি বিশেষ অংশ। এই রেসিপিটি আপনাদের পরিবারের প্রতিটি সদস্যের মন জয় করবে এবং আপনার রান্নার দক্ষতায় যোগ করবে নতুন মাত্রা। সঠিক উপকরণ এবং কিছুটা সময় ব্যয় করে আপনি ঘরেই তৈরি করতে পারেন রেস্তোরাঁ মানের গরুর কালা ভুনা। সুতরাং, দেরি না করে আজই চেষ্টা করুন এই রেসিপিটি এবং নিজের রান্নার টেবিলকে আরও মনোমুগ্ধকর করে তুলুন। আশা করি, এই রেসিপিটি আপনাদের ভালো লাগবে এবং গরুর কালা ভুনা রান্নার অভিজ্ঞতা আপনাদের জন্য হবে একটি বিশেষ স্মৃতি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top