Chorabali Logo
স্বাস্থ্য

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রেজাল্ট দেখার নিয়ম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রেজাল্ট দেখার নিয়ম: বাংলাদেশের সর্বোচ্চ শিক্ষা স্থানের নাম হচ্ছে সম্মান কিংবা অনার্স শিক্ষাবর্ষ। যেখানে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন প্রতিটি শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে নিজের ভবিষ্যৎ জীবন আলোকিত করার সুযোগ পান। বাংলাদেশের এই শিক্ষা স্তরে দু’ভাগে বিভক্ত একটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত আরেকটি হচ্ছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় মূলত বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত হয়ে থাকে অপরদিকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিজেদের কর্তৃপক্ষ অনুযায়ী পরিচালনা করে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর সম্পূর্ণ নিয়ম কানুন মূলত বাংলাদেশ সরকার এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ থেকে পরিচালিত হয় অপরদিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা বোর্ড থেকে এ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রতিটি বিষয় পরিচালনা করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স মাস্টার্স শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার নির্দিষ্ট সময়ের ফল ফলাফল প্রকাশ করা হয়। ফলাফল বের করার জন্য এখন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইট থেকে সহজেই ফলাফল জানা যায় এমনকি স্মার্ট মোবাইল ফোনে এসএমএস এর মাধ্যমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলাফল জানা সম্ভব। তাইতো অনেকেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রেজাল্ট দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান তাদের উদ্দেশ্যে আজকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো তুলে ধরা হয়েছে।

শিক্ষা পৃথিবীর প্রতিটি মানুষের জীবনকে আলোকিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাইতো পৃথিবীর প্রতিটি সচেতন মানুষ নিজের উন্নত জীবনকে আলোকিত করার জন্য প্রাতিষ্ঠানিক প্রতিটি শিক্ষা সম্পন্ন করে থাকেন। বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর মতো এখন বাংলাদেশেও শিক্ষা ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার প্রচুর পরিমাণে বিনিয়োগ করে থাকেন। বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিটি মানুষের জন্য প্রাথমিক মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক এবং স্নাতক শিক্ষা পর্যায় পর্যন্ত শিক্ষা গ্রহণের প্রতি গুরুত্ব দিয়েছেন। বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় একজন মানুষকে প্রাথমিক থেকে সম্মান স্নাতক শিক্ষা পর্যন্ত শিক্ষা গ্রহণ করতে হয়। যে ব্যক্তি প্রাথমিক থেকে সম্মান কিংবা স্নাতক শিক্ষা পর্ষায় পর্যন্ত শিক্ষা গ্রহণ করে থাকেন তাকে উচ্চশিক্ষিত ব্যক্তি হিসেবে অবহিত করা হয়। বাংলাদেশের এই শিক্ষা ব্যবস্থায় সম্মান কিংবা স্নাতক পর্যায় শিক্ষার্থীদের দুটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ রয়েছে একটি হচ্ছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অন্তর্ভুক্ত অপরটি হচ্ছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় অর্থাৎ সরকারের আওতায়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পূর্ণ ব্যবহার এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি কলেজ মূলত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত হয়।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট দেখার নিয়ম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিটি শিক্ষার্থীকে প্রতিবছর প্রতিটি বর্ষ শেষে ফাইনাল পরীক্ষা অংশগ্রহণ করতে হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক ফাইনাল পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার নির্দিষ্ট সময়ের পর পরীক্ষার্থীদের ফলাফল প্রকাশ করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলাফল জানের জন্য প্রতিটি শিক্ষার্থীকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে ফলাফল জানতে হয় এছাড়া স্মার্ট মোবাইল ফোনের এসএমএসের মাধ্যমে প্রতিটি শিক্ষার্থী তাদের ফলাফল জেনে নিতে পারে। তাইতো অনেকেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান তাদের উদ্দেশ্য কিভাবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট বের করতে হয় তা সম্পর্কে আপনাদেরকে জানাবো। আমাদের এই তথ্যগুলো আপনার নিজের প্রয়োজনে সংগ্রহ করতে পারবেন এবং আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে সকলকে সহায়তা করতে পারবেন। নিচে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রেজাল্ট দেখার নিয়ম গুলো তুলে ধরা হলো:

সবার প্রথমে মোবাইলের যেকোনো ব্রাউজারে গিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অফিশিয়াল এই nu.ac.bd/results  ওয়েবসাইটি তে ভিজিট করুন।

এরপর মেনু অপশন থেকে অনার্স বাটনে ক্লিক করুন।

এরপর শিক্ষার্থীর যে বছর ফলাফল চেক করতে চাই সে বর্ষ সিলেক্ট করুন।

শিক্ষার্থী রোল নাম্বার এবং রেজিস্ট্রেশন নাম্বার সাবমিট করুন।

পরীক্ষার বছর সিলেক্ট করুন।

সর্বশেষ ক্যাপচা কোড পূরণ করে সার্চ রেজাল্ট অপশনে ক্লিক করুন।

এরপর একটি নতুন ইন্টারফেজে আপনাকে অনার্স রেজাল্ট দেখিয়ে দেওয়া হবে।

 

ডিগ্রি কোর্স রেজাল্ট মোবাইল এসএমএস ফরমেট – NU <স্পেস> DEG <স্পেস> Roll Number <স্পেস> লিখে মেসেজটি সেন্ড করতে হবে 16222 নম্বরে।

অনার্স কোর্স রেজাল্ট মোবাইল এসএমএস ফরমেট – NU <স্পেস>  H1, H2, H3, H4  <স্পেস> Roll Number <স্পেস> লিখে মেসেজটি সেন্ড করতে হবে 16222 নম্বরে।

মাস্টার্স প্রিলি ও ফাইনাল কোর্স রেজাল্ট মোবাইল এসএমএস ফরমেট – NU <স্পেস> MP (মাস্টার্স প্রিলি), MF (মাস্টার্স ফাইনাল) <স্পেস> Roll Number <স্পেস> লিখে মেসেজটি সেন্ড করতে হবে 16222 নম্বরে।

Mahedi Roni

আমি মেহেদি হাসান। পেশায় একজন বেসরকারি চাকরিজীবী। ২০১৫ সাল থেকে লেখালিখি নিয়ে আছি। এখন লেখালিখি পেশা ও সখ ২ টাই হয়ে গেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also
Close