Chorabali Logo

রিজিক নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস ও হাদিস 2024

অনেক সময় কোরআনে রিজিক সম্পর্কিত হাদিসগুলো খুঁজলে পাওয়া যায় না। কিন্তু মুসলিম মনীষীদের এমন কিছু রিজিক নিয়ে উক্তি রয়েছে যা আপনাকে অবাক করতে বাধ্য করবে। আজকের আর্টিকেলে  রিজিক নিয়ে স্ট্যাটাস এবং বিভিন্ন হাদিস আপনাদের সামনে তুলে ধরব। আপনারা অনেকেই ‌অনলাইনে রিজিক নিয়ে উক্তি সার্চ করেন। তাদের জন্য সাজানো হয়েছে আমাদের আজকের লেখাটি। চলুন তাহলে দেরি না করে রিজিক নিয়ে উক্তিগুলো জেনে নেওয়া যাক:

১) হারাম রিজিক আমাদেরকে বড় করে না। আই মহান আল্লাহতালা এটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছেন।
-নুরা আল আজিজ।

২) রিজিকের মালিক আল্লাহ ছাড়া কেউ নয়, তাই রিজিকের জন্য একমাত্র তার কাছে মোনাজাত করুন।
-মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স)

৩) রিজিকের জন্য শুধুমাত্র আল্লাহর কাছে প্রার্থনা না করে তার জন্য যথেষ্ট পরিমাণ পরিশ্রম করা উচিত।
-আবুল মিশকাত।

৪) আল্লাহ তা’আলার সব থেকে বড় প্রেরিত জিনিস হলো রিযিক। প্রত্যেক প্রাণীর জন্য আল্লাহ আলাদা আলাদা রিজিকের ব্যবস্থা করেছেন।
-সূরা হুদ।

৫) আল্লাহ যার উপর খুশি হন তার রিজিকের পরিমাণ দ্বিগুণ করে দেন, যার উপর নিরাশ তার রিযিক কমিয়ে দেন।
সূরা আর রাদ :২৬

৬) সৎ পথে রোজগার করলে এবং সারা জীবন সৎ পথে চললে রিযিকের অভাব হয় না।
মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স)

৭) হালাল উপার্জন করলে শান্তি পাওয়া যায় এবং হারাম উপার্জনে জীবন থেকে শান্তি বিনষ্ট হয়।
মানাহিল আইমা।

৮) আল্লাহ তার প্রিয় বান্দাদের অঘাত সম্পত্তি দান করেন। কারণ তারা সৎ পথে রোজগার করে।
সূরা: আল-বাক্বারাহ, আয়াত ২১২

৯) তোমার যতই সম্পত্তি থাকুক না কেন ততক্ষণ পর্যন্ত তুমি তোমার রিসিভ গ্রহণ করতে পারবেনা যতক্ষণ না পর্যন্ত আল্লাহতালা চাইছেন।
ইব্রাহিম বিন খালিদ।

১০) মহান আল্লাহতালা তোমার রিযিকের ব্যবস্থা করে রেখেছেন। তাই নিরাশ না হয়ে সৎ পথে কাজ করো।
মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স)

হালাল রিজিক নিয়ে উক্তি

হালাল রিজিক নিয়ে অনেক মনীষীদেরই অনেক উক্তি রয়েছে। এই উক্তিগুলো অনেকে ফেসবুকে তাদের স্ট্যাটাস হিসেবে ব্যবহার করেন। আবার অনেকে তাদের জীবনযাত্রায় হালাল রিজিক নিয়ে উক্তি গুলো মেনে চলেন।

১) সব সময় গরীব দুঃখীকে খাবার বিতরণ করুন। এতে করে আপনার রিজিক পবিত্র হবে।
মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স)

২) আল্লাহর কাছে রিজিকের জন্য মোনাজাত করো, তার ইবাদত করে যাও এবং যতটুকু পেয়েছো তার জন্য কৃতজ্ঞ থাকো। – সুরা আনকাবুত : আয়াত ১৭

৩) প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে আল্লাহর নামে রিজিক চেয়ে খেতে খামারে ছড়িয়ে পড়ো। তোমাদের রিজিকের অভাব হবে না।
পবিত্র আল কুরান।

৪) হে মনুষ্য জাতি! তোমরা ধনসম্পত্তি আয় করার উত্তম পদ্ধতি অবলম্বন কর। কারণ তোমার রিজিক পরিপূর্ণ না হলে তুমি মৃত্যুবরণ করবে না।
রাসূল ( সা)

৫) পাখিরা যেমন খালি পেটে বাসা থেকে বের হয়ে ভরা পেটে বাসায় ফিরে ঠিক তেমনি আল্লাহতালা মানুষের জন্য রিজিকের ব্যবস্থা করেছেন।
তিরমিজি, হাদিস নং- ২৩৪৪

৬) হে আদম সন্তান! আমি তোমার হৃদয়ের সকল অভাব পূর্ন করব। এবং তোমার হৃদয়কে আমি কর্মব্যস্ত করব।
মাকাল ইবনু ইয়াসির

৭) হে বনি আদম! তুমি আমার ইবাদতে মনোনিবেশ করলে আমি তোমার অন্তরকে সচ্ছলতায় ভরে দেবো।
মাকাল ইবনু ইয়াসির

৮) পৃথিবীর প্রত্যেক জীবের জীবিকার দায়িত্ব একমাত্র আল্লাহ তা’আলার কাছে। তাই কেউ রিজিক নিয়ে চিন্তা করবেন না।
সূরা হূদ – ৬

৯) যে আল্লাহকে ভয় করে চলেন আল্লাহ তায়ালা তার নিষ্কৃতির পথ দেখান। এবং তিনি ব্যক্তির ধারণাতীত রিজিক প্রদান করেন।
সূরা তালাক, আয়াত ২-৩

১০) আল্লাহকে ভয় করলে তার আনুগত্য মেনে চললে আল্লাহর দেওয়া রিজিক ভালোভাবে ভোগ করা যায়।
সূরা তালাক।

শেষ কথা

অনেকেই অনলাইনে রিজিক নিয়ে উক্তি খোঁজ করে থাকেন। আমরা এই আর্টিকেলে প্রায় ২০ টি রিজিক নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, এবং হাদিস আপনাদের সামনে তুলে ধরেছি। উক্তিগুলো পছন্দ হলে আপনারা আপনাদের বন্ধুদের এবং পরিবারের সঙ্গে শেয়ার করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top